ভুল হলেও টিক/ ঠিক হলেও টিক……..

ভুল হলেও টিক/ ঠিক হলেও টিক…………।।

কয়েক মাস আগের ঘটনা।দেশের একটি বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের জন্য একটি পরীক্ষার আয়োজন করেছিল।পরীক্ষা সাধারণত আনন্দদায়ক কোন ঘটনা নয়।কিন্তুু বিশ্বাস করুন আর না করুন,সেই পরীক্ষাটি মজার ছিল এবং আমার মনে হয় সবাই সেটি খুব ভালোভাবেই উপভোগ করেছিল। পরীক্ষাটা একটু আজিব ধরনের ছিল।টিক চিহ্ন দেওয়ার পরীক্ষা ।সত্য হলে টিক ,মিথ্যা হলেও টিক ।এনাটমি বিদ্যার কতটুকু মস্তিষ্কে উচ্ছিষ্ট কিম্বা অবশিষ্টাংশ হয়ে অবস্হান করছে তার পরীক্ষা বললেও ভুল হবে না ।কিন্তু এনালগ মস্তিষ্কের ফাঁকফোকরে যে জ্ঞান রাখা ছিল তার স্টক যে ফার্স্ট প্রফ পরীক্ষা দেওয়ার সাথেই শেষ হয়ে গেছে তা কে আর জানত ?যাইহোক পরীক্ষা তো দিতেই হবে ।কেননা বহুদূর থেকে আয়োজকরা এসেছেন- শুধু আমাদের পরীক্ষা নেবেন বলে।

প্রশ্ন খুলে তো অবাক ।ওয়াও!কি সুন্দর রঙ বেরঙের ছবি ।তবে ছবির নিচের প্রশ্নগুলো মেজাজ খারাপ করার মত ।কিছুই পারিনা ।শেষে শুরু করলাম বাছবিচার না করে ননস্টপ টিক দেওয়া ।কলমের খোঁচায় পৃষ্ঠার পর পৃষ্ঠা টিকে ভরে গেল ।সবগুলো টিক দেওয়ার পরে ঘড়িতে তাকিয়ে দেখি দুঘন্টার পরীক্ষার মাত্র ত্রিশ মিনিট গেছে ।হায় হায় এখন কি করব ।পাশের জনের দিকে তাকাই ।সে হাসিমুখে জবাব দেয়,দোস্ত আমি তো আগেই সব উত্তর দিয়েছি ।সব উত্তর দিয়ে এখন প্রশ্নটা খুলে দেখছি, কি লেখা আছে সেখানে ?আমি তো পুরোই টাশকি খেয়ে গেলাম ।মোটামুটি চল্লিশ মিনিটের মধ্য সবার পরিক্ষা শেষ ।এটা দেখে  আয়োজকদেরও চোখ কপালে ।তারা বললেন ,প্রশ্ন পড়তেও কমপক্ষে চল্লিশ মিনিট লাগার কথা ।সেখানে তোমরা কিভাবে এটা করলে ?গ্যালারিতে আমাদের একজন স্যারও বসেছিলেন।তিনি তখন বললেন ,আসলে আমাদের ছেলেমেয়েরা একটু বেশীই ফাস্ট ।ওরা একটু বেশিই পারে ।-এই বলে তিনি একটা হাসি দিলেন ।তার দেখাদেখি আমরাও হাসি ।শেষে সময় থাকতেই পরীক্ষা শেষ হলো ।আয়োজকরা এতে খুশি হলো না, বেজার হলো-সেটা অবশ্য বোঝা গেল না। উত্তরপত্র পরীক্ষকদের হাতে তুলে দিয়ে যেন আমরা হাফ ছেড়ে বাঁচলাম।
এরপর অধীর আগ্রহে বসে আছি সবাই ।অবশেষে এলো সেই মাহেন্দ্রক্ষন ।পিনপতন নিরবতার পরিবর্তে গ্যালারিজুড়ে হুল্লোড় ।আপনি ভাবছেন এই বুঝি ফলাফল ঘোষনা হবে ।

ধূর মিয়া ।এসেছে খাবারের প্যাকেট !!

শুকপাখি সম্পর্কে

নিজেকে নতুন করে আবিষ্কার করার অভিপ্রায় বুকে লালন করি সবসময়ই।তাই হয়ত নিরানন্দ মেডিকেল লাইফের বাইরের জগত সম্পর্কে আমার জানার আগ্রহে কমতি নেই,বরং বোধহয় একটু বেশিই।জানতে, জানাতেই লেখার চেষ্টা করি।লেখা সুখপাঠ্য হয় কিনা জানি না,না হলে না হোক;নিজের আনন্দ লাভের এ উপলক্ষ ছাড়তে চাই না কখনই।
এই লেখাটি পোস্ট করা হয়েছে বিবিধ-এ। স্থায়ী লিংক বুকমার্ক করুন।

8 Responses to ভুল হলেও টিক/ ঠিক হলেও টিক……..

  1. অবন্তিকা বলেছেনঃ

    হাহাহা! মজার তো! 🙄
    স্পেসিংয়ের গোলমাল কিন্তু যায় নি ভাইয়া! :thinking:

    • শুকপাখি বলেছেনঃ

      আপু,আমি খুবই দুঃখিত।
      আপনি বলারও কয়েকদিন আগে এটি সহ আরও কয়েকটি লেখাটি পরপর পোস্ট করেছি । এ কারনে এই সমস্যা সমাধান করা যায় নি । হয়ত আরও দু একটি লেখায় এ ধরনের সমস্যা হতে পারে।
      সে পর্যন্ত আমাকে ক্ষমা করা হোক।

  2. ফিনিক্স বলেছেনঃ

    শুরু করে ভাবছিলাম বুঝি বা আমাদের দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার সাথে গঠনমূলক তুলনাটা পাবো। কিন্তু সেসব কিছুই হলো না দেখে মন খারাপ লাগছে একটু। 🙁

    • শুকপাখি বলেছেনঃ

      ওহ সরি!
      আপুনি ,আসলে অনেকদিন আগে আমাদের কলেজের এই ঘটনা ফেসবুকে শেয়ার দিবো বলে লিখেছিলাম।আসলে মজা করার জন্যই তখন এরকম ভাবে লিখেছিলাম।একারনে এসব ভারি জিনিস মাথায় আসেনি।

  3. অনুজ বলেছেনঃ

    লাস্ট লাইনটা পড়ার আগ পর্যন্ত ভেবেছিলাম এইটা আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার উপর একটা সালতামামী। কিন্তু…
    যাই হোক, ব্যাপারটা মজার… 🙂

  4. হাসান বলেছেনঃ

    “এসেছে খাবারের প্যাকেট !!”
    আগে খাদ্য তারপর বস্ত্র বাসস্থান অতপর শিক্ষা… 😯

শুকপাখি শীর্ষক প্রকাশনায় মন্তব্য করুন জবাব বাতিল

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।