ফড়িং

ফড়িং

ফড়িং, তুমি ওড়ো-
চোখের ফাঁকিতে ওড়ো,
আমার ঘুমের বালিশে ঘোরো।

ফড়িং, তুমি বসো-                                                                                                                             লাউডগায় তুমি একটুখানি বসো                                                                                                     আশার সালিশে আমাকে একটু দোষো।

ফড়িং, তোমার ইতস্তত চোখ-                                                                                                           তোমার পাখায় কমলা রঙের রোদ,                                                                                                           আমি ধরতে চাই তোমার ছলনা বোধ।

ফড়িং, তুমি একা,                                                                                                                                   আমার হাতের সীমানায়, একা-                                                                                                              শুরু হোক তোমার কাছে আমার প্রেম শেখা।

জুলফিকার ইসলাম সম্পর্কে

পড়াশোনা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগ থেকে। এমবিএ শেষ দিকে। উদ্যোক্তা হওয়ার ইচ্ছা। বিজনেস নিয়ে সিরিয়াসলি লেখালেখি করি। শখের বশে কবিতা লিখি। তীব্র ভালোবাসা পেলে কবিতা লিখতে ইচ্ছে করে, কেউ প্রচণ্ড আঘাত করলে কবিতা লিখতে ইচ্ছে করে। এই অনুভূতিগুলো খুব আটপৌড়ে নয়, ঘনঘন আসে না। সেজন্য কবিতাও আসে না। রাজনীতি, অর্থনীতি, দর্শন,ইতিহাস, সাহিত্য- এগুলো নিয়ে সময় কাটাতে ভালো লাগে।
এই লেখাটি পোস্ট করা হয়েছে কবিতা-এ। স্থায়ী লিংক বুকমার্ক করুন।

6 Responses to ফড়িং

  1. বোহেমিয়ান বলেছেনঃ

    তা বালিকাটা কে 😉

    • জুলফিকার ইসলাম বলেছেনঃ

      এই প্রশ্ন করে কোনো লাভ নাই। কারণ এই অনুভূতি একটা কমন অনুভূতি। বালক-বালিকা নির্বিশেষে এই অনুভূতি হয়।

  2. অবন্তিকা বলেছেনঃ

    একদসম প্রথমে ‘ফড়িং,তুমি’ এর মাঝে একট স্পেস হবে ভাইয়া! 🙂 আর লেখকের সম্পর্কে লেখার স্থান ফাঁকা কেন! :haturi: কবিতাটা সুন্দর! :love:

  3. ফিনিক্স বলেছেনঃ

    ফড়িং আর ভালোবাসা একাকার হয়ে গেছে কবিতায়! :love:

জুলফিকার ইসলাম শীর্ষক প্রকাশনায় মন্তব্য করুন জবাব বাতিল

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।