ধ্যানী প্রেমিক

ধ্যানী

নদী গেছে মরে-
শরীর কেটে তার করেছি ফসলের চাষ,
সে এখন ধানী জমি;
উচ্চফলনশীল ধানে তার শরীর গেছে ভরে।

দুই বাহু তার প্রাণহীন আছে পড়ে-
প্রবল স্রোত-সেনা ছিল,দাপুটে ছিল বেশ,
সেখানে এখন মানব বসতি;
চলে কারবার, দিনরাত ওরা লেনদেন করে।

মৌসুমি টানে বান আসে-
কী এক লীলা তার, সব যায় ভেসে!
খাবি খায় সব ফসল-চিন্তা, কারবারি জ্ঞান;
তখন আমি ধ্যানী প্রেমিক, করি তোমার ধ্যান।

জুলফিকার ইসলাম সম্পর্কে

পড়াশোনা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগ থেকে। এমবিএ শেষ দিকে। উদ্যোক্তা হওয়ার ইচ্ছা। বিজনেস নিয়ে সিরিয়াসলি লেখালেখি করি। শখের বশে কবিতা লিখি। তীব্র ভালোবাসা পেলে কবিতা লিখতে ইচ্ছে করে, কেউ প্রচণ্ড আঘাত করলে কবিতা লিখতে ইচ্ছে করে। এই অনুভূতিগুলো খুব আটপৌড়ে নয়, ঘনঘন আসে না। সেজন্য কবিতাও আসে না। রাজনীতি, অর্থনীতি, দর্শন,ইতিহাস, সাহিত্য- এগুলো নিয়ে সময় কাটাতে ভালো লাগে।
এই লেখাটি পোস্ট করা হয়েছে কবিতা, সাহিত্য-এ। স্থায়ী লিংক বুকমার্ক করুন।

2 Responses to ধ্যানী প্রেমিক

  1. বোহেমিয়ান বলেছেনঃ

    যেইটা আমি বুঝছি বাকিরা কি সেইটা বুঝে লজ্জা পেয়ে কমেন্ট করে নাই? :p

বোহেমিয়ান শীর্ষক প্রকাশনায় মন্তব্য করুন জবাব বাতিল

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।