পারমানবিক রূপ

উৎসর্গ
ধরণীকে

অভিসারিকা , মকবুল ফিদা হুসেন


রূপের শরীর তুমি,
ঠিক যেন পারমানবিক চুল্লি;
জ্বলতে জ্বলতে,জ্বালাতে জ্বালাতে
নিয়ত বিদ্যুৎ উৎপন্ন কর আমার ভিতর।

হয়ে যাক চুক্তি
যুগল বাসনার,আমার আঙিনায়
দীঘল চুল ছড়িয়ে ,চোখের বিষ ঢেলে
দিন-রাত তুমি বিদ্যুৎ উৎপন্ন করবে।

বিস্ফোরণ চাই না আমি
ফোর-জি ভালোবাসা মেখে দেব
শরীরে তোমার। থাকবে নিরাপত্তা বেষ্টনী,
প্রহরী হবে একঝাঁক নিবেদিত গ্লাডিওলাস।

উন্নয়নশীল দেশ আমার
যথাযথ বিদ্যুৎ পেলে,শহরে-গ্রামে
বয়ে যাবে নিশ্চিত উন্নয়নের জোয়ার!

জুলফিকার ইসলাম সম্পর্কে

পড়াশোনা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগ থেকে। এমবিএ শেষ দিকে। উদ্যোক্তা হওয়ার ইচ্ছা। বিজনেস নিয়ে সিরিয়াসলি লেখালেখি করি। শখের বশে কবিতা লিখি। তীব্র ভালোবাসা পেলে কবিতা লিখতে ইচ্ছে করে, কেউ প্রচণ্ড আঘাত করলে কবিতা লিখতে ইচ্ছে করে। এই অনুভূতিগুলো খুব আটপৌড়ে নয়, ঘনঘন আসে না। সেজন্য কবিতাও আসে না। রাজনীতি, অর্থনীতি, দর্শন,ইতিহাস, সাহিত্য- এগুলো নিয়ে সময় কাটাতে ভালো লাগে।
এই লেখাটি পোস্ট করা হয়েছে কবিতা, সাহিত্য-এ এবং ট্যাগ হয়েছে , , , , স্থায়ী লিংক বুকমার্ক করুন।

2 Responses to পারমানবিক রূপ

  1. সামিরা বলেছেনঃ

    কবিতা পোস্ট করলে এক প্যারা বা তিন-চার লাইন পর (যেখানে ইচ্ছা) ‘insert more’ অপশনটা যোগ করে দিতে পারেন ভাইয়া, এডিট প্যানেল থেকে। নাহলে হোম পেইজে পুরো কবিতা এসে থাকে। 🙂

সামিরা শীর্ষক প্রকাশনায় মন্তব্য করুন জবাব বাতিল

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।