জন্মদিনেঃ বড় হতে চাওয়ার গল্প

বয়স যখন ২১ তখন নিচের ছড়াটি লিখেছিলাম ((http://www.ibappy.com/2009/11/blog-post_2180.html))!

২১ হলেই বিয়ে হবে! হতেই হবে,হলেই ভাল!
দিতে হবে, দিতেই হবে, দিকে দিকে আগুন জ্বালো!
চন্দ্রছায়ায় জোনাক জ্বলে, মনটা হারায় তোমার চুলে!
২১ বলেই প্রতি রাতে, দেখছি আমি স্বপ্ন ভুলে!
চোখ দুটি তোর অতল গভীর ইচ্ছে মতো রোজ পাড়ি দেই!
২১ এলেই ক্ষুব্ধ আকাশ রুদ্র ঝড়ে…গিটারটা নেই!
আকাশ ছোবো!ধুত্তেরি ছাই! বুঝছে না কেউ ,২১ মানেই আকাশ হওয়া!
২১ মানে অহংবোধে,প্রবল রোষে,গ্রীক দেবতা জোরসে ধাওয়া!
২১ মানে হাওয়ায় দুলে তুর্কি নাচন,বস্ত্রহীনের সাম্বা নাচ!
২১ হলে বাধঁন ভাঙার আওয়াজ শোনা, ভব্যিষ্যতের নতুন আজ!
আকাশ পাতাল ফুড়ঁছি মাটি, ধুচ্ছি সাগর, তবুও আমি আইনে বাধা!
চাইছি সখি, পারছি না তো করতে বিয়ে, আইনবিদরা মস্ত গাধা

এই সব ছেলেমানুষি গুলো আমার এখনও যায় নি 😛 নিজের মধ্যে দুষ্টুমি পুষে রাখাটা জরুরি মনে হয়।

এবারে আসি একটু বড় হবার গল্পে, গতবার আমার জন্মদিন উপলক্ষ্যে একটা নোট লিখেছিলাম শ্রাবণীপু, আমরা আছি। তোমার পাশে, ধ্রুব ভাইয়ার পাশে। শ্রাবণী আপু, দারুণ অসুস্থ ছিলেন, তাঁর প্রচুর টাকার দরকার ছিলো। আমি এতটা কষ্ট পেয়েছিলাম…

নিজে বন্ধুদের প্রতি বছর খাওয়াতাম,  বাসায় কেক আনা হত এবং বন্ধুরা কিছু না কিছু উপহার দিত। গতবার বন্ধুদের খাওয়ালাম না, কেক এর টাকা নিলাম বাসা থেকে! বন্ধুদের কাছ থেকেও চাইলাম! এই সব টাকা শ্রাবণী আপুর জন্য দিয়েছিলাম। আমার নোটটি দারুণ সাড়া ফেলেছিলো। বাংলাদেশ প্রতিদিনেও ((http://www.bd-pratidin.com/print_news.php?path=data_files/213&cat_id=2&menu_id=31&news_type_id=1&index=0)) এসেছিল, এই লেখার কারণে অনেক অনেক বন্ধু ও শুভাকাঙ্ক্ষী পেয়েছিলাম। আমার লেখার কারণে বুয়েট এ ছেলেপেলে টাকা তোলা শুরু করে দিয়েছিলো। আমার মনে হয়েছিলো জন্ম নেয়া সার্থক! এবং আরও সুখের ব্যাপার হচ্ছে সেই শ্রাবণী আপু এখন সুস্থ!

আমার অবদান বা কাজ করার জায়গা/ ইম্প্যাক্ট ছোট্ট হলেও মনে হয়েছিল আমি শুধু বয়সে না, মনে, কাজেও বড় হয়েছিলাম!

আমার এবারের জন্মদিনেও কাউকে খাওয়াচ্ছি না। গতকাল সরব এর আড্ডায় সবাইকেই হতাশ করেছি! তবে তারা যখন শুনল যে আমি কেন খাওয়াচ্ছি না তারা খুশিই হলো। আমার এই আইডিয়াটা পেয়েছি এখান থেকে!

গতকালকের আড্ডায় উপস্থিত অন্যান্য সদস্যরাও এই আইডিয়ার সাথে একমত হয়েছে। আমরা জন্মদিনে অনেক বাজে খরচ করি- অথচ আমরা এই টাকাকে ভালো কাজে, ভালো দিকে ব্যয় করতে পারি। তারাও ঠিক করেছে ভবিষ্যতে তাঁদের জন্মদিনগুলোকে অন্যদের জন্য উৎসর্গ করবে।

আমার এবারের সব টাকা আমি একজন রুগ্ন মা’র চিকিৎসার জন্য দিব ঠিক করেছি।

আমি যখন ছোট তখন বয়সে বড় কেউ বলেছিল, বড় হতে হলে বড় হবার মত কাজ করতে হয় ।

আমরা প্রতি বছর বয়সে বড় হই, আকারেও হয়তবা। মনে, জ্ঞানে কতটা হই? প্রশ্নটা নিজের জন্যই!

বোহেমিয়ান সম্পর্কে

পেশায় প্রকৌশলী, নেশায় মুভিখোর আর বইপড়ুয়া। নিজেকে খুঁজে পাবার জন্য হাঁটতে থাকি। স্বপ্নের সাথে হাঁটা, স্বপ্নের জন্য হাঁটা। https://www.facebook.com/ibappy
এই লেখাটি পোস্ট করা হয়েছে উদ্যোগ-এ এবং ট্যাগ হয়েছে , , , স্থায়ী লিংক বুকমার্ক করুন।

17 Responses to জন্মদিনেঃ বড় হতে চাওয়ার গল্প

  1. যারির বলেছেনঃ

    এরকম কত ইচ্ছাই সারাক্ষন মাথায় ঘুরে ফিরে, চতুর্দিকে খেলা করে কিন্তু শেষমেশ হারিয়ে যায় কোথায় যেন, নিজেরই উদ্দ্যোগের অভাবে। এখন উচিৎ নিজের প্রতি শপথ করা যেন এরকম কোন উদ্দ্যোগকে আমরা হারিয়ে যেতে না দেই এবং নিজেদের জন্মদিনগুলোকে পরিণত করি একেকটি নতুন সম্ভাবনা ও স্বপ্নকে বাস্তবে রুপান্তরিত করার উজ্জ্বল দ্বার হিসেবে।

    তবে মাথায় খেলা করা ইচ্ছেগুলোর সাথে উপরের ছড়াটির অনেক মিলই খুজে পেলাম। 😛 :happy:

  2. শামসীর বলেছেনঃ

    আমার এবারের জন্মদিনেও কাউকে খাওয়াচ্ছি না। :(:(

    তারপরও Happy bairth day

  3. অক্ষর বলেছেনঃ

    ভাইয়া, আমি এবং আমার বন্ধুদের ও একই কাজ করতে বলব, আশা করি এটা সবার জন্যই অনেক ভালো কিছু বয়ে আনবে :huzur:

  4. সামিরা বলেছেনঃ

    অসাধারণ একটা আইডিয়া। :huzur:

    কিছু টাইপো দেখতে পাচ্ছি আমি, কবিতায় বিশেষ করে। আর “জন্মদিনে”র পরে “:” হবে।

  5. শিশিরকণা বলেছেনঃ

    :huzur:

  6. “বড় হতে হলে বড় হবার মত কাজ করতে হয়”

    কথাটা ভীষণ রকম ভালো লাগলো! বিশ্বাস এই বোধটাকে বাঁচিয়ে রাখতে পারবো বহুদিন… :huzur:

  7. নিশম বলেছেনঃ

    আমি তোমার মতো হতে চাই, তোমার মতো চিন্তা করতে চাই, তোমার মতো অনুভব করতে চাই …….

    “বড় হতে হলে বড় হবার মত কাজ করতে হয়”

    কী অসাধারণ একটা কথা, চুপ করে ভেবে দেখলাম, অনেক ভার কথাটার !!!

  8. সাথী বলেছেনঃ

    কী যে ভাল লাগল তোমার লিখাটা !! অনেক অনেক ভাল!
    অসাধারণ একটা আইডিয়া। :huzur:

  9. কৃষ্ণচূড়া বলেছেনঃ

    জন্মদিনে মনে বড় হই- দারুণ ভাবনা দোস্ত। আহা, প্রতিদিনের হাজার হাজার জন্মদিনে যদি সবাই মনে বড় হত!

    তুই বড় হ, মনে-কাজে-কর্মে-চিন্তায় বড় হ। কবিতাটা দুর্দান্ত! :clappinghands:
    তবুও বলি, :happybirthday:

    দোয়া রইল।

  10. বোহেমিয়ান বলেছেনঃ

    সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা

    তোমাদের মন্তব্য হৃদয় ছুঁয়ে গেলো :love:

  11. ফিনিক্স বলেছেনঃ

    জন্মদিনে বড় হতে চাওয়ার গল্প ছুঁয়ে গেল আমাকে। যারা মনের দিক থেকে বড় তারা তো এমন লিখবেন-ই, এইরকম করে ভাববেন-ই।

    নিজের কাছেই অনেক প্রশ্ন জমা হয়ে গেল।
    কবে বড় হতে পারব?
    মৃত্যুর আগে আদৌ পারব তো?

  12. স্বপ্ন বিলাস বলেছেনঃ

    গত বছর তোর আইডিয়াটা যে কী ভালো কাজে দিয়েছিলো, চোখের সামনে দেখেছিলাম আর মুগ্ধ হয়েছিলাম। :clappinghands:

    “বড় হতে হলে বড় হবার মত কাজ করতে হয় ।”
    কবে যে বড় হব! 🙁

  13. অবন্তিকা বলেছেনঃ

    :বড় হতে হলে বড় হবার মত কাজ করতে হয় ।” :fire:

  14. অচেনা রাজ্যের রাজা বলেছেনঃ

    বড় হতে হলে বড় হবার মত কাজ করতে হয় :thinking:

  15. এখন তো বয়স পচিশের ও বেশি।

    বিয়ে কি হয়েছে ? দুশ্চিন্তায় আছি

    🙁 🙁

নিশম শীর্ষক প্রকাশনায় মন্তব্য করুন জবাব বাতিল

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।