পাহাড়ি কন্যা

Author's details

Name: পাহাড়ি কন্যা
Date registered: জুলাই 20, 2012

Biography

বাঙালি আবেগপ্রবণ জাতি, আমিও তার ব্যতিক্রম নই। বাস্তব ও কল্পনা আমার দৈনন্দিন জীবনের সহযাত্রী। জীবনকে ভালবাসি। অনেক স্বপ্ন দেখি, যদিও তা বাস্তব থেকে মাঝে মাঝে দূরে সরিয়ে নিয়ে যায়। তবুও স্বপ্ন দেখতে ভালবাসি। আমি বরাবরই রাশভারী প্রকৃতির মানুষ, স্বল্পভাষী কিন্তু হাসতে খুব ভালবাসি।

Latest posts

  1. হারিয়ে যাও — এপ্রিল 9, 2018
  2. পরিচয় — নভেম্বর 24, 2017
  3. শেষ বিকেলের গল্প — অক্টোবর 10, 2017
  4. আগন্তুক — জানুয়ারী 24, 2017
  5. ছুটে চলা… — সেপ্টেম্বর 13, 2016

Most commented posts

  1. “আকাশ কত দূরে” : চলচ্চিত্র বিশ্লেষণ — 10 comments
  2. ভালো থেকো মেঘ — 9 comments
  3. Psychological Complex: আপনি কি মানসিক জটিলতায় ভুগছেন? — 9 comments
  4. ‘জাতিস্বর: A Musical of Memories’ — 8 comments
  5. ‘বাবুসোনা, তুমি বড় হয়ে কি হতে চাও?’ — 6 comments

Author's posts listings

হারিয়ে যাও

“…যদি কোনদিন ঘুম ভেঙ্গে দেখি সেই আকাশ আর নেই, মাথার ওপর থেকে হারিয়ে গেছে সেই সুনীল সাগর…কি হবে আমার?…” পাহাড়ের কোল বেয়ে সূর্যটা দিচ্ছে উঁকি। পুবের মৃদু হাওয়া, কোকিলের কুহুতান, মাথার ওপর বিশাল আকাশ। আকাশটা ঠিকঠাক আছেই তাহলে। জীবনটাকে খুব ভালবাসতে ইচ্ছে হল কি? জীবনটা সত্যি অনেক সুন্দর! সত্যিই কি তাই? কে জানত মৃত্যুর আগে …

Continue reading »

পরিচয়

-আমি আর্কিটেকচার বিল্ডিঙের সামনে, আপনি? -আমি কাছাকাছি। আসছি। -(কিঞ্চিৎ বিরক্ত কণ্ঠে) আপনি কোথায়? -আমি পাঁচ মিনিটের ভেতরেই আসছি। একটু অপেক্ষা করুন। রাস্তা পার হয়ে ব্যাংকের গেটের সামনে আসতেই তাকে আবারও ফোন দিলাম। সে ক্যাম্পাসে প্রথম এসেছে। তাই সব বিল্ডিং, সব গেট ঠিকমত চেনে না। -আপনি কোথায় আছেন এখন? -আপনি কোথায় আছেন সেটা বলুন। আমিই আসছি। …

Continue reading »

শেষ বিকেলের গল্প

নতুন বাসায় উঠেছি বছর খানেক হয়ে গেল। আমাদের কমপ্লেক্সের ঠিক মাঝখানটায় সবুজ লন আছে। প্রতি সন্ধ্যায় ফ্লাডলাইটের আলোয় জেগে উঠে এই লন। কেউ হয়তো ব্যাডমিন্টন খেলায় ব্যস্ত, কেউ হয়তো অফিস শেষে বাচ্চাদের নিয়ে সময় কাটাচ্ছেন, কেউ হয়তো ফাউন্টেনের পানিতে আলতো পা ভিজিয়ে আড্ডায় মশগুল। আর আমার চোখ ফ্লাডলাইটের আলোর উদ্ভাসনে ডুবে থাকে সবুজের মাঝে। মুগ্ধতার …

Continue reading »

আগন্তুক

অফিস থেকে বাসায় ফিরছি। বিকেল সোয়া পাঁচটা কি সাড়ে পাঁচটা বাজে। মহাখালি ফ্লাইওভারের উপর বিদঘুটে জ্যামে আটকা পড়ে আছি। গত কয়েক মাসে জীবনটা অনেক বদলে গেছে। বদলে গেছি আমিও। এই বদলে যাওয়ার গল্পটা সবসময় ঘুটঘুটে কালো চাদরে ঢেকে রাখি। যেন ঘুণাক্ষরেও দেখা না যায়। কিন্তু এই অদ্ভুতুরে ভাবনাগুলো প্রায়শ বেরিয়ে আসে ঐ কালো চাদরের মাঝ …

Continue reading »

ছুটে চলা…

গ্র্যাজুয়েশন কমপ্লিট করলাম বেশ কয়েক মাস হয়ে গেল। সময় খুব দ্রুত কেটে যাচ্ছে। ফোর্থ ইয়ারের শেষ দিকে বেশ ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলাম। ল্যাব প্রোজেক্ট আর থিসিসের চাপে যখন নিজেকে আর ধরে রাখতে পারছিলাম না, তখন নিজেকে এই বলে সান্ত্বনা দিচ্ছিলাম, ‘এই তো আর কয়েকটা দিন।’ তারপর র‍্যাগের প্রোগ্রামগুলো একের পর এক চোখের পলকে শেষ হয়ে গেল। …

Continue reading »

সহসা

হিমছড়ির সূর্যটাকে হঠাৎ মনে পড়ল। মেরিন ড্রাইভ রোড ধরে আমাদের গাড়ি ছুটে চলছিল। দুচোখ ভরে যতখুশি সমুদ্র দেখে নাও। গাড়ির মধ্যে গোটাপাঁচেক মানুষের মুখে কোন কথা নেই। একবার মনে হল, এই পথের কি কোন শেষ আছে! পরমুহূর্তেই মনে হল, কি ভাবছি! পথ শেষ না হলেই তো ভাল। দুচোখ যেমন সমুদ্রের মাঝে ডুবে আছে, তেমনি ডুবে …

Continue reading »

মন খারাপের রাতে

ইদানিং রাতে ঘুম আসে না। ঘুমালেও কিছুক্ষণ পরপর ঘুম ভেঙ্গে যায়। গতরাতেও ঘুম ভেঙ্গে দেখি ঘড়িতে সাড়ে তিনটা বাজে। মন খারাপের রাতগুলো অনেক দীর্ঘ হয়। মাথায় অজস্র চিন্তা উঁকিঝুঁকি দিতে থাকে। ভাবলাম, জেগে থাকলে চিন্তাগুলো অযথা জট পাকতে শুরু করবে। তাই ঘুমানোর চেষ্টা করা উচিত। কিন্তু ভাবলেই কি ঘুম আসে? অথচ যখন কাজের চাপ তুঙ্গে …

Continue reading »

ট্রি-মেইল: প্রিয় বৃক্ষকে পাঠিয়ে দিন ই-মেইল

স্কুল-কলেজে থাকতে ‘বৃক্ষরোপণ অভিযান’/ ‘পরিবেশ সংরক্ষণে বনায়ন’ রচনা আমরা সবাই পড়েছি। রচনার বিভিন্ন অংশে আমরা বৃক্ষরোপণের গুরুত্ব, বৃক্ষনিধনের অপকারিতা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ রোধে বৃক্ষের অবদান এসব পয়েন্ট গতানুগতিকভাবে লিখে এসেছি। আরেকটি কমন পয়েন্ট যেটা আমরা মোটামুটি সবাই এক অর্থে মুখস্থ লিখে দিতাম তা হল, বৃক্ষরোপণ অভিযানে সকলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে টেলিভিশন, প্রিন্ট মিডিয়াকে সর্বোচ্চ ভূমিকা পালন …

Continue reading »

Money cannot buy everything

১. আমার এক ফ্রেন্ডের বাবা একটি নামী ব্যাংকের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ছিলেন। স্কুলে ওকে সবসময় দেখে এসেছি বেশ আদুরে মেয়ে হিসেবে। আন্টি ছিলেন হাউজওয়াইফ। বিলাসবহুল জীবনযাপন বলতে যা বুঝায় ওকে দেখলেই বুঝা যেত। একদিন সকালে ওর বাবা অফিসের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন ৭:৪৫টার দিকে। ১০:৩০টার দিকে অফিস থেকে ফোন এসেছে যে, ওর বাবা মারা গেছেন। একটি অ্যাম্বুলেন্সে …

Continue reading »

ফুলার রোডের মুক্ত হাওয়ায় শুধুই দীর্ঘশ্বাস

ফুলার রোড, টিএসসি, চারুকলা, সোহরওয়ার্দি উদ্যান, কার্জন হল, শহীদ মিনার…ভার্সিটি লাইফ শেষে এই জায়গাগুলোই সবচেয়ে বেশি মিস করব। আমরা যারা ভার্সিটি ক্যাম্পাস এলাকায় (ঢাকা ভার্সিটি/ বুয়েট/ ঢাকা মেডিকেল কলেজ) ক্লাস করি কিংবা হলে থাকি, তাদের জন্য এই এলাকা অবাধ বিচরণ ক্ষেত্র। বলতে পারেন, ভার্সিটি লাইফের ৪/৫ বছরে এই জায়গাগুলো এতটাই আপন হয়ে যায় যে আপনি …

Continue reading »

Older posts «