Category Archive: বইপড়ুয়া

কি যে ভীষণ কষ্টের ! কি ভীষণ কষ্টের!

ইদানীং প্রায়ই সকালে আমার ঘুম থেকে উঠতে দেরি হয়। আব্বা-আম্মা সকাল ৬টার আগেই ঘুম থেকে উঠে নামাজ কালাম পড়েন। তাদের দরজা খোলার শব্দ, কথা, কুরআনের আওয়াজে আমার ঘুম ভাঙ্গে। ঘুম ভাঙ্গার পরে শুনতে পাই আব্বা কিংবা আম্মা কুরআন পড়ছেন। গত কয়েকদিন ধরে সকালে ঘুম ভাঙ্গলে দেখি আম্মা সোফায় বসে মৃদু শব্দে কি যেন পড়ছেন। ঘুম …

Continue reading »

সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ্‌র ‘লালসালু’ এবং বিশ্বাসের চোখ

সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ্‌র ‘লালসালু’ পড়েছেন? এটার ইংরেজি অনুবাদের টাইটেলটা আমার বেশ পছন্দ – Tree without Roots. বেশিরভাগ লেখকের কাছে গল্প মানে ঘটনার আড়ম্বর, কিন্তু ওয়ালীউল্লাহ্ লিখেছেন ঘটনাহীন জীবনের কাহিনী। ভীষণ ভাবে বাস্তব তার উপন্যাস। চোখ থাকতেও আমরা যেমন দেখি না, ভয় আমাদের হৃদয়কে আচ্ছন্ন করে রাখে। বাস্তবতা ক্রমশ অবাস্তব হয়ে ওঠে, আর অবাস্তবতা বাস্তব। ‘লালসালু’ উপন্যাসে …

Continue reading »

[বুক রিভিউ] “দুর্ঘটনায় কবি”

‘’’ চাঁদপুর কলেজের ফুটবল টিমের গোলকিপার, মিঠাপুকুর গ্রামের সারোয়ার আজ অনেক দূর এগিয়েছে। … তার চোখে গুচ্চির রিমলেস গ্লাস। পায়ে কুমিরের চামড়ার ডিজাইনের শু এবং ম্যাচিং করা বেল্ট। শানেলের টুইডের প্যান্ট আর মার্কস এন স্পেন্সারের ফুল স্লিভ শার্ট।… সারোয়ার হাসল। তার আন্ডারওয়ারটা গুলিস্তানের।” ‘দুর্ঘটনায় কবি’ জিয়া হাসানের প্রথম উপন্যাস। প্রথম হলেও, লেখকের দীর্ঘকাল পোশাক শিল্পে …

Continue reading »

আমাদের বাঙলা সাহিত্য: অন্ধকারের দিনগুলি

বাঙলা সাহিত্যের প্রথম নিদর্শন বলে যে পুস্তিকাটিকে স্বীকৃতি দেয়া হয়, তার নামটা বেশ রহস্যময়। পুস্তিকাটির নাম চর্যাপদ। এই পুস্তিকাটির আরও কয়েকটা নাম আছে। অনেকে একে ডাকেন চর্য্যাচর্য্যবিনিশ্চয় নামে, কেউ আবার ডাকেন চর্য্যাশ্চর্য্যবিনিশ্চয় নামে। বড্ড বিদঘুটে নাম, বলতেই হয়। তবে আজকাল একে চর্যাপদ নামেই ডাকতে আমরা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি, তুলনামূলকভাবে যথেষ্টই সহজবোধ্য নাম। বিশেষজ্ঞদের মতে এই …

Continue reading »

অজগর সাপ শিয়াল খেয়ে ফেলসে

রোজার মধ্যে পড়াশোনা অন্য যে কোন সময়ের তুলনায় অনেক বেশি হয়। আলসেমি না করলে হয়তো একটা বই ও লিখে ফেলতে পারবো। বিশেষ করে যোহরের পর বিশাল একটা সময়  পাওয়া যায় । রোজার সময় তাড়াতাড়ি গোসলের কারণে, আর দুপুরের খাবারের জন্য না উঠার জন্য এত সময় বেঁচে যায়। ******** আজকে পেপারে পড়লাম একটা অজগর সাপ নাকি …

Continue reading »

আমাদের বাঙলা সাহিত্য

আমি তখন বেশ ছোট, ক্লাস এইটে পড়ি। গোলাম মোস্তফা স্যারের বাঙলা ব্যাকরণ ক্লাস চলছিল। ণ-ত্ব বিধানের নিয়ম পড়াচ্ছিলেন স্যার। পড়াবার এক পর্যায়ে স্যার বলছিলেন, ট-বর্গীয় কোন বর্ণের অর্থাৎ ট, ঠ, ড এবং ঢ এর পূর্বে যদি ‘ন্‌’ ধ্বনির আগমন হয় এবং ঐ ‘ন্‌’ সহযোগে যদি কোন যুক্তবর্ণ গঠিত হয়, তাহলে তার বানানে সবসময় ‘ণ’ ব্যবহৃত …

Continue reading »

বাচ্চাদের রসায়নঃ মিশ্রণ

যে গরম পরেছে, এই গরমে একটা কোকা-কোলার সুইমিংপুলে ডুব দিয়ে সাতার কাটতে পারলে ভালো হতো, তাই না? বেশী কোকা-কোলা কিংবা সফট ড্রিংক্স খাওয়াটাও শরীরের জন্য ভালো না, এ জন্য আমার আম্মু আমাকে বেশী বেশী লেবুর শরবত বানিয়ে দেয়। লেবুর শরবত বানাতে কি কি লাগে, তুমি নিশ্চয়ই জানো? চিনি, লেবুর রস আর পানি। এই তিনটা উপাদান …

Continue reading »

মাশুদুল হকের বিলু, কালু আর গিলুর “কালি ও কলম” জয়

“রাজার ছেলে বিলু, বসেছিল প্রাসাদের দাওয়ায়। তাই দেখে রাজা রেগে মেগে দিলেন হুঙ্কার। পাইক পেয়াদা, বরকন্দাজ কে আছিস? বাঁদরটাকে ধরে নিয়ে আয়! তাই শুনে, পাইক পেয়াদার লাঠি সোঠা, তীর ধনুক,বর্শা আর হাতের কাছে যা ছিল তাই নিয়ে ছুটলো। রাজপ্রাসাদে বাঁদর, দেখো দেখি! কিন্তু কোথায় বাঁদরটাকে দেখতে না পেয়ে শেষমেষ একদল বনের দিকে রওনা দিল বাঁদর …

Continue reading »

বইয়ের ভুবন ও লেখককুঞ্জ(৮): একুয়া রেজিয়া

বই পড়তে ভালোবাসেন এমন কাউকে যদি জিজ্ঞেস করা হয়, একটি উৎসবের নাম বলুন, যেটা গোটা বাঙ্গালী জাতিকে এক সুতোয় গাঁথে? এক শব্দের যে উত্তরটি শোনা যাবে নিঃসন্দেহে সেটা অনুমান করা খুব কঠিন কিছু নয়। বাঙ্গালীর প্রাণের মেলা, নিজের ভেতরকার ‘আমি’ কে খুঁজে পাওয়ার মেলা,  বাঙ্গালিয়ানার মেলা- অমর একুশে বইমেলা। বইমেলার চিন্তাটি প্রথম যার মাথায় আসে …

Continue reading »

বইয়ের ভুবন ও লেখককুঞ্জ(৭): মোঃ আমিনুর রহমান

বই পড়তে ভালোবাসেন এমন কাউকে যদি জিজ্ঞেস করা হয়, একটি উৎসবের নাম বলুন, যেটা গোটা বাঙ্গালী জাতিকে এক সুতোয় গাঁথে? এক শব্দের যে উত্তরটি শোনা যাবে নিঃসন্দেহে সেটা অনুমান করা খুব কঠিন কিছু নয়। বাঙ্গালীর প্রাণের মেলা, নিজের ভেতরকার ‘আমি’ কে খুঁজে পাওয়ার মেলা,  বাঙ্গালিয়ানার মেলা- অমর একুশে বইমেলা। বইমেলার চিন্তাটি প্রথম যার মাথায় আসে …

Continue reading »

Older posts «